পৃষ্ঠাসমূহ

মঙ্গলবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৪

প্রাপ্তি



তোমার যত কষ্টে আমি ফেলেছি চোখের জল
ততই আমায় করেছ আঘাত হয়েছি টলমল।
একটি বারও কাছে টেনে দাওনি এ চোখ মুছে
তোমার মুখে দেখলে হাসি গিয়েছে ব্যথা ঘুচে।
কাঁতর হয়েছি চোখের পানি মুছেছি আমি নিজে
পারিনি বলতে একটি বারও ভালোবাসতাম কিযে।
আমার বুকে রাখতে মাথা বুলিয়ে দিতাম হাত
কতনা তোমায় শুনিয়েছি গান জেগেছি সারা রাত।
আঘাত দিয়েছ হৃদয় ভেঙ্গেছ করিনিতো প্রতিবাদ
ফুলের বদলে দিয়েছ কাঁটা করেছ বরবাদ।


অক্টোবর, ২০১৪

মহররম



নবজাতকের রক্তে সিক্ত হচ্ছে আরব গাজা।
বলতে পারো দুধ-শিশুরা পাচ্ছে কিসের সাজা?
উদয়াস্ত এদিক সেদিক ছুট্‌ছে গোলা তাজা,
সব দেখেও নিশ্চুপ আছে কোন্ সে মহারাজা?

মহররমের দিনে কেন ডাক্‌তে খোদা-আল্লা,
কাঁপছে ভয়ে বোনটি আমার ছুটতেছে রামাল্লা?
ওদের কান্না শুনে কাঁপছে আল-আকছা-র পাল্লা,
আর কতবার মরবে ওরা ওগো রাসুলাল্লা?

শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৩

অনুযোগ

যদি চলতে পথে তোমার পায়ে কাঁটা ফোটে কভু,
কে তোমার ওই কাঁটা সরায়, আমি নাকি প্রভূ?
ঠোঁটে তোমার কষ্ট-রেখা ফুটে ওঠে যখন,
আলতো করে হাত বুলিয়ে আমি-ই ধরি তখন।
অশ্রু ধারা যখন ঝরে কাঁদে তোমার মন,
হাত বাড়িয়ে বুকে টেনে আমি-ই নিই তখন।
হাজার যন্ত্রণাতে যখন কাতর থাকো তুমি,
দিবা-নিশি পাশে থাকি কাছে টানি চুমি।
হরেক রকম মন ভোলানো গল্প বলে যাই,
সদা সুখে থাকো তুমি এই তো আমি চাই।
কভু তোমার কাছে আমি চাইনা প্রতিদান,
শুধু আমায় যেওনা ভুলে করোনা অপমান।

রবিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৩

বাঁশি

জানতনা যে বাঁশি বাজাতে,
বাঁশের বাঁশি তুলে দিলে তার হাতে।
লুকায়েছ কোথা, বলোনা সে কথা,
রয়েছ কোন সুদূর?
সে বাঁশি আমার, বাজে শতবার,
শুনবেনা বাঁশির সুর?

রবিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

অনুতাপ

আজকে আমার সমাধীতে কেন ফুল হাতে তুমি বল?
মুখ খানি কেন বিরস তোমার আঁখি কেন ছলছল?
যেদিন তোমার ফুল চেয়েছি সকরুণ আঁখি মেলে,
অসহায় এই আমায় তুমি গিয়েছিলে পিছু ফেলে।
তোমার চলে যাওয়ার পথে,
চেয়ে থেকেছি সুদূর হতে,
ভেবেছি তুমি আসবে রথে,
                                 সব অভিমান ভুলে।
তোমার ফেরার আশায় আমার দিন ফুরায়ে গেল।
শেষ বিদায়ের যাত্রা দেখে কি সুখ পেলে বল?

শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

মাওলা

মাওলা আমায় ক্ষমা করো, তোমায় আমি ডাকলাম না।
তুমি এতো দয়ার সাগর, তোমার মান তো রাখলাম না।
অন্ধকারে পথ হারিয়ে যখন দাঁড়াই থম্‌কে,
আলো হয়ে পথটি দেখাও কখনো না ধম্‌কে।
তোমার আশীর্বাদে অনেক উঠেছি আমি চম্‌কে।
মূর্খ আমি, তবুও তোমার ছবি মনে আঁকলাম না।

শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

ফুল ও মানুষ

ফোটেনা পুষ্প নিজের লাগিয়া, আপনারে করে দান;
নিঙরায় তারে অবাক পৃথিবী নিতে পুষ্পের ঘ্রাণ।
যে ফুল কাননে রাতের আঁধারে সুবাস পেখম মেলে,
দিন শেষে সে-ই ঝরে পরে রয় ধরনীতে অবহেলে।
পারবে কি কভু দিতে একটি ফুলের প্রাণের দাম?
সৃষ্টির সেরা বলছো নিজেকে মানুষ দিয়েছ নাম!